নিরাপত্তার স্বার্থে হাবিপ্রবিতে মনিটরিং কমিটি গঠন

করোনা পরিস্থিতিতে দীর্ঘ ১ বছর ৩ মাস ধরে বন্ধ থাকা পরীক্ষাগুলো গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (হাবিপ্রবি)।

আগামী ১০ জুন থেকে স্ব-শরীর পরীক্ষা নিতে পারবে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি অনুষদ। পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম শৃঙ্খলা রক্ষা, স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলা, চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করা এবং সার্বিক বিভিন্ন বিষয় তত্বাবধানের জন্য প্রশাসনিকভাবে একটি কমিটি গঠন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

হলসুপার ও হলসুপার কাউন্সিলের আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মোঃ গোলাম রাব্বানী আহ্বায়ক করে কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিতে সদস্য হিসেবে রয়েছেন অধ্যাপক ড. মোঃ খালেদ হোসেন, অধ্যাপক রোজিনা ইয়াসমিন লাকী, সহযোগী অধ্যাপক ড. মোঃ রাশেদুল ইসলাম, সহযোগী অধ্যাপক ড. মোঃ আবু সাঈদ, সহকারী অধ্যাপক মোঃ আব্দুল মোমিন শেখ, সহকারী অধ্যাপক মোঃ শিহাবুল আউয়াল এবং চীফ মেডিকেল অফিসার ডা. মোঃ নজরুল ইসলাম। সদস্য-সচিব হিসেবে রয়েছেন ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা বিভাগের পরিচালক অধ্যাপক ড. ইমরান পারভেজ।

বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. মোঃ ফজলুল হক।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করেনা মহামারী জনিত কারণে দীর্ঘদিন পর এ বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শিক্ষার্থীরা আগামী ১০-০৬-২০২১ খ্রী. তারিখের পর স্ব-শরীরে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে যাচ্ছে। পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম শৃঙ্খলা রক্ষা, স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলা, চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করা এবং সার্বিক বিভিন্ন বিষয় তত্বাবধানের জন্য প্রশাসনিকভাবে নিম্নোক্ত মনিটরিং কমিটি গঠন করা হলো।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, উক্ত কমিটি করোনা ভাইরাস মহামারীকালে অনুষ্ঠিতব্য পরীক্ষা গ্রহণ কালে উপরোক্ত বিষয়াদি মনিটরিং করিবেন এবং উদ্ধত যে কোন পরিস্থিতিতে সিদ্ধান্ত গ্রহণ ও জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করিবেন।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের রুটিন দায়িত্ব প্রাপ্ত উপাচার্য অধ্যাপক ড. বিধান চন্দ্র হালদার বলেন, পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ রক্ষা এবং শিক্ষার্থীদের চিকিৎসা সেবা প্রদানে আমাদের মেডিকেল সেন্টারের ডাক্তারদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন :