স্ত্রীর বিরুদ্ধে ‌‘সন্তান হত্যা’র অভিযোগ করলেন নোবেল

এর আগেও বিভিন্ন বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন নোবেল ম্যান খ্যাত সঙ্গীতশিল্পী মইনুল আহসান নোবেল। এবার নিজের স্ত্রীর বিরুদ্ধেই অনাগত সন্তানকে হত্যার অভিযোগ করলেন তিনি।

বৃহস্পতিবার এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে স্ত্রীর বিরুদ্ধে এমনই অভিযোগ করেন নোবেল।

এর আগে গত ২৮ জুন ফেসবুকে এক পোস্টে নিজের বাবা হতে যাওয়ার খবর জানান তিনি। পোস্টে তিনি লিখেন, ‘হয়তো আমরা মা-বাবা হতে চলেছি। আমার এবং আমার সহধর্মিণীর জন্য দোয়া করবেন।’

দুই দিন পর ৩০ জুন নোবেলের স্ত্রী সালসাবিল মাহমুদ ফেসবুক লাইভে এসে জানিয়ে দেন, তিনি অন্তঃসত্ত্বা নন। এ বিষয়ে নোবেলের সঙ্গে তার কোনো প্রকার কথাবার্তাও হয়নি। নিজের নতুন গানের প্রচারের জন্যই নোবেল এই কাণ্ড ঘটিয়েছেন বলে অভিযোগ করেন তিনি।

নোবেলের ওপর ক্ষোভ উগরে তিনি বলেন, 'মাতৃত্বের মতো একটি সংবেদনশীল বিষয় নিয়ে মজা করাটা অপরাধ। আমার কাছের মানুষ এমন কিছু করে থাকলে আমি খুবই লজ্জিত।'

পরে বৃহস্পতিবার সালসাবিলের লাইভের জবাবে ফেসবুকে সাফাই দিয়ে একটি দীর্ঘ পোস্ট লেখেন নোবেল। তিনি জানান, সালসাবিল অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার কিছু লক্ষণের কথা তাকে বলেছিলেন। উত্তেজনায় তাই নিশ্চিত খবর না জেনেই ‘বাবা’ হওয়ার আনন্দ সবার সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছিলেন তিনি।

নোবেলের সন্দেহ, তার স্ত্রী ওষুধের সাহায্যে ইতোমধ্যেই হয়তো তাদের অনাগত সন্তানকে হত্যা করেছেন।

বর্তমানে নোবেল ও তার স্ত্রী এক সঙ্গে থাকেন না। নোবেলের পোস্টের শেষ ভাগ থেকেই সে কথা স্পষ্ট। তিনি জানিয়েছেন, তাঁর স্ত্রীর সন্ধান তিনি জানেন না। পড়াশোনা এবং পরিবার নিয়ে ব্যস্ত থাকেন সালসাবিল। তবে স্ত্রীর সাথে সংসার করার প্রত্যাশা করেন তিনি।

মন্তব্য লিখুন :