ভারতের প্রধানমন্ত্রীর জন্য তৈরি হচ্ছে নতুন বাসভবন

ভারতের প্রধানমন্ত্রীর থাকার জন্য সম্পূর্ণ নতুনরূপে একটি বাসভবন তৈরি করা হচ্ছে। (সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন)

২০২২ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর নতুন বাসভবন তৈরির লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে এগিয়ে চলেছে দেশটির সরকার। করোনা মহামারিতে যাতে এই কাজ না আটকায় সে জন্য ‘সেন্ট্রাল ভিস্তা প্রজেক্ট’কে ‘জরুরি পরিষেবা’র আওতাভুক্ত করা হয়েছে। এবার এই প্রকল্প সরকারের কাছ থেকে পরিবেশ সংক্রান্ত ছাড়পত্রও পেয়ে গেছে। ফলে প্রধানমন্ত্রীর নতুন বাসভবন তৈরির দিকে আরও এক ধাপ এগিয়ে গেলো। যদিও করোনাকালে এই সব কর্মকাণ্ডের তীব্র বিরোধিতা করেছে দেশটির সরকারবিরোধীরা। তবে তা উপেক্ষা করেই এগিয়ে যেতে বদ্ধপরিকর কেন্দ্রীয় সরকার।

সেন্ট্রাল ভিস্তা প্রজেক্টের আওতায় নতুন সংসদ ভবন এবং প্রধানমন্ত্রীর নতুন বাসভবন, স্পেশাল প্রোটেকশন গ্রুপ বা বিশেষ নিরাপত্তা বাহিনীর (এসপিজি) প্রধান কার্যালয় তৈরি করা হবে। মধ্য দিল্লিতে এই প্রকল্পের কাজ জোর কদমে এগিয়েও চলেছে।

আগামী বছর ডিসেম্বরের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন তৈরির সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছে। অর্থাৎ এই বাসভবন থেকেই পরের লোকসভা ভোটে লড়তে চান নরেন্দ্র মোদি। ২০২২-এর ডিসেম্বরের মধ্যে এসপিজির প্রধান কার্যালয়ও তৈরির লক্ষ্যমাত্রা রাখা হয়েছে। মূলত প্রধানমন্ত্রীর সুরক্ষার কারণেই দুটি কাজ একসঙ্গে শেষ করার কথা বলা হয়েছে। 

কেন্দ্রের এই কর্মকাণ্ড নিয়ে বার বার বিরোধিতা করেছে কংগ্রেস। দিন কয়েক আগেই রাহুল গান্ধী এর বিরোধিতায় টুইট করেন। এমনকি সেন্ট্রাল ভিস্তা প্রজেক্টের বিষয়টি সুপ্রিম কোর্ট পর্যন্তও গড়ায়। যদিও সর্বোচ্চ আদালত এতে স্থগিতাদেশ দেয়নি। সেন্ট্রাল ভিস্তা প্রজেক্টে ২০২২ সালের মে মাসের মধ্যে উপরাষ্ট্রপতির বাসভবন তৈরি করা হবে। এই প্রকল্পে রাষ্ট্রপতি ভবন থেকে ইন্ডিয়া গেট পর্যন্ত ৪ কিলোমিটার এলাকা নতুন করে সাজানো হবে। 

মন্তব্য লিখুন :