সৌন্দর্য্য বর্ধনে বনসাই

ছোট পাত্রে বিশেষ পদ্ধতিতে গাছ লাগিয়ে ছোট রাখাকে বনসাই বলা হয়। বাংলাদেশে বাণিজ্যিক ভিত্তিতে বনসাই চাষ করে আর্থিকভাবে লাভবান হওয়া যায়। এছাড়া ঘরের কোণে বা ছাদে রাখলেও সৌন্দর্য্য বাড়ে।

বনসাই কথার অর্থ ট্রের মধ্যে ফলানো। শক্ত কান্ড রয়েছে এমন গাছের খর্বাকৃতি করার শিল্পকে বনসাই বলা হয়। গাছের গড়ন নির্ণয় থেকে শুরু করে তাতে পানি দেয়া তথা বাচিয়ে রাখা এবং যে পাত্রে বা টবে তা চাষ করা হয় তা নির্ধারণ এবং প্রতিস্থাপন সবই এর অন্তর্ভুক্ত।

প্রাচীন চীনা শব্দ ‘পেনজাই’ থেকে জাপানী ‘বনসাই’ শব্দের উৎপত্তি। বনসাই করতে ব্যবহৃত ট্রের মত যে পাত্র ব্যবহার করা হয় তাকেই সাধারণভাবে ‘বন’ বলা হয়। পাশ্চাত্যে পাত্রে খর্বাকৃতির গাছ বলতে ‘বনসাই’ বোঝায়।

আসুন আজ জেনে নেয়া যাক বনসাই করার পদ্ধতি ঃ

স্থান

বনসাই চাষের জন্য রোদ নেই  আলো-বাতাস আছে এমন জায়গা নিতে হবে। যেমন- ফ্ল্যাটের বারান্দা, বাসার ছাদ অথবা পর্যাপ্ত পরিমাণে আলো-বাতাস ঢোকে এমন ঘর।

যন্ত্র

পট, হাফ ড্রাম, সিমেন্ট বা মাটির টব, স্টিল বা প্লাস্টিক ট্রে, কোদাল, কাচি, ঝরনা, বালতি, করাত, খুরপি, স্প্রে মেশিন, দোঁ-আশ মাটি, পঁচা শুকনা গোবর ও কম্পোস্ট, বালু, ইটের খোয়া ইত্যাদি।

মাটি

টবে দো-আঁশ মাটির সঙ্গে জৈব সার মিশিয়ে মাটি তৈরি করতে হবে। টবের পানি নিষ্কাশনের জন্য ছিদ্রের উপর ইটের কুচির পরিবর্তে এক টুকরা তারের জালি রেখে তা কিছু কাঁকড় দিয়ে ঢেকে দিতে হবে।

ধাপ

কাণ্ড, শেকড়, শাখা-প্রশাখা ও পাতা বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। টবের ছোট গাছে বয়োবৃদ্ধ গাছের ভঙ্গিমা আনার চেষ্টা করতে হবে। বনসাইকে যে মডেলের রূপ দেওয়া হবে তা স্থির করে শাখা বাছাই করতে হবে। জোড়া পাতার কক্ষ থেকে কাণ্ডের দু’পাশের দু’টি শাখা গজায়। বাছাই পদ্ধতি অনুসারে এর একটি রাখতে হবে।

ছাঁটাই

বয়স ৩-৪ বছর হলে প্রুনিংয়ের প্রয়োজন হয়। বাছাই করা মোটা শাখাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে ছাঁটাই করতে হবে।


পরিচর্যা

গাছকে নিয়মিত কালো মাটি, বালু বা ইটের চূর্ণ, সরিষা বা নীলের খোসা ইত্যাদি খাবার দিতে হবে।

অতিরিক্ত জলাবদ্ধতা এবং রোদ থেকে দূরে রাখতে হবে।

ধুলো-ময়লামুক্ত রাখতে পানি দিয়ে পাতা ও ডাল মুছে দিতে হবে।

টবের মাটিতে পোকামাকড় কিংবা ছত্রাক হলে সঠিক মাত্রায় কীটনাশক দিতে হবে।

এমন স্থানে রাখতে হবে, যেখানে আলো-বাতাস চলাচল করে কিন্তু লোকজনের যাওয়া-আসা কম।

নির্ধারিত আকৃতি ঠিক রাখতে নির্ধারিত ডালপালা বাদে ছাঁটাই করতে হবে।

প্রতি একবছর অন্তর টবের মাটি পরিবর্তন করতে হবে।

গাছের ছাঁটাইসহ অন্যান্য কাজে নির্ধারিত যন্ত্রপাতি ব্যবহার করতে হবে।


মন্তব্য লিখুন :