বার্সেলোনা নিয়ে এক ফ্যানের অনুভূতি

বার্সার বর্তমান ক্রাইসিস এবং সেগুলো থেকে ওভারকাম করার কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করছি... 

(একান্ত ব্যক্তিগত মতামত)

পরবর্তী সিজনে বার্সার একটা বিরাট রকমের পরিবর্তন প্রয়োজন, যদি তারা ইউসিএলে আবার স্ট্রিংলি কাম ব্যাক করতে চায়। দুইটা সিবি, একটা এলবি, একটা নাম্বার নাইন, একটা ডিএমএফ মাস্ট নিডেড। ডিএমএফের কথা এজন্য বললাম কারণ Busquets এর প্রাইম টাইম শেষ, এখনো যা দিচ্ছে এটাই অনেক বেশি কিন্তু সে ইঞ্জুর্ড হলে আমাদের মিড সম্পূর্ণ কলাপ্স করে যা এটিএম এর ম্যাচ দেখেই পরিষ্কার বোঝা গেছে। আরেকটা সিএমএফ লাগবে তবে সেটা ফিজিক্যাল প্লেয়ার, Vidal, Wijnaldum এর মতো যারা কিনা নিচে নেমে প্রতিপক্ষ দলের আক্রমণ ভেঙে,  নতুন করে এ্যাটাক বিল্ডাপে সাহায্য করবে। এক্ষেত্রে Moriba দিনদিন উন্নতি করছে, অপরদিকে, Vidal কে ছেড়ে দেয়া ছিল বার্সা বোর্ডের আরেকটা বড় ব্লান্ডার। সেট পিচ নিয়েও বার্সাকে অনেক কাজ করতে হবে। আমরা চিরকাল সেট পিচে পিছিয়ে ছিলাম এবং এখনো একই অবস্থা, এমন কি সেট পিচ থেকে আমরা প্রায় প্রতি ম্যাচে গোল কনসিড করছি। দুইটা সিবি কেনার ক্ষেত্রে চারটি ক্রাইটেরিয়া মাথায় রাখতে হবে বার্সা বোর্ডের,  

১. হাইট, 

২. স্পিড

৩. ডিফেন্সিভ এবিলিটি

৪. ম্যান মারকিং পজিশন সেন্স

কারণ হাইট ভালো থাকলে সেট পিচে অনেক এডভান্টেজ পাবে বার্সা। মেসির বানানো ক্রস বা লফ্টেড পাস গুলোও গোলে পরিণত করতে পারবে। সেই সাথে কর্নার কিক বা সেট পিচ থেকে নেয়া ফ্রি কিক গুলোও খুব সহজে ক্লিয়ার করতে পারবে। একজন ভালো হাইটের ডিফেন্ডার Araujo, Pique এরা মাঠে নামলে মেসির ক্রসগুলো মাঝেমধ্যে হেড দিয়ে গোলে কনভার্ট করতে পারে হোক সেটা অফসাইড কিন্তু এটা বার্সার জন্য একটা পজিটিভ দিক। গুরুত্বপূর্ণ হাই ভোল্টেজ ম্যাচগুলোতে অনেকসময় এই সেট পিচ থেকে আসা গোলের উপর ম্যাচের ফলাফল নির্ভর করে। রিয়ালের ১৩/১৪ সিজনের ইউসিএল-টা এসেছিলো Ramos এর শেষ মুহূর্তের গুরুত্বপূর্ণ হেড এর সেই ক্লিনিক্যাল ফিনিশিং এর কারণেই। আর স্পিডের কথা বললাম বার্সার রিসেন্ট ম্যাচগুলোতে কাউন্টারে গোল হজম করেছে বেশি সেক্ষেত্রে একজন স্পিডি ডিফেন্ডার খুব সহজেই সুন্দর একটা কাউন্টার প্রতিহত করার ক্ষমতা রাখে। MBappe, Halland, Aubameyang এদের মতো স্পিডি ফরোয়ার্ডদের আটকানোর জন্য স্পিডি সিবি অবশ্যই দরকার বার্সার। লা 'লিগার ছোটো ছোটো দলের স্ট্রাইকারগুলোও খুব সহজেই আমাদের ডিফেন্স লাইন বিট করে ডি-বক্সে ঢুকে যায় শুধুমাত্র স্পিডের কারণেই। অবশ্য এক্ষেত্রে RB এবং LB খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এই সিজনে Lenglet, Umtiti, Pique বার্সার অনেক ম্যাচ ডুবিয়েছে শুধুমাত্র এই পুয়োর ম্যান মারকিং সেন্স এর জন্য। কিন্তু পিকের মত একজন সিনিয়র পরীক্ষিত সেন্টার ব্যাক থেকে এসব silly error সত্যি আনএক্সপেকটেড।  জুভেন্টাসের সাথে বার্সার হোম ম্যাচে McKenzie এর গোল এবং রিসেন্ট Valencia এর বিপক্ষে Gabriel Paulistar হেডের গোলটি দেখলে বোঝা যায় বার্সা ডিফেন্ডারদের ম্যান মারকিং সেন্স এর কী যা-তা অবস্থা। সেক্ষেত্রে আমার ৩জন পছন্দের তালিকায় ছিলো:

1. Upamecano

2. Koulibaly

3. Alaba

Upamecano এর সাথে বায়ার্নের ডিল ডান। খুব সম্ভবত আলাবাও রিয়ালে যাচ্ছে। বাকি রইল Koulibaly কিন্তু মনে হয় না বার্সার ওর প্রতি কোন আগ্রহ আছে। 

এবার আসা যাক একজন প্রোপার নাম্বার ৯ এর বিষয়ে। Suarez এর মতো এতো ক্রিয়েটিভ নাম্বার ৯ ও আমাদের দরকার নেই আবার হইলেও কোনো ক্ষতি নেই। পেলে উপরি পাওনা। আমাদের এখন এমন কাউকে দরকার নেই, যে গোল করতে না পারলেও স্পেস তৈরি করে দিবে মেসির জন্য বা এসিস্ট করবে সঠিক সময়ে। তবে আমাদের এমন একজন বেস্ট নাম্বার ৯ দরকার যার ফিনিশিং হবে ডেডলি ডি-বক্সের যে কোনো পজিশনে বল পেলে সেটা যেনো সে গোলে কনভার্ট করতে পারে, যেমন: Halland Mbappe. এজন্য আমার পছন্দের তালিকায় আছে ২জন :

1. Kane

2. Halland

Halland কাউন্টার এটাকের জন্য পুরোপুরি পারফেক্ট প্যাকেজ কিন্তু বার্সা কাউন্টার বেসিসে তেমন একটা এট্যাক বিল্ডাপ করে না, বার্সা শর্ট পাসিং পজিশন বেজড্ ফুটবল খেলে তাই Halland বার্সার স্টাইলের সাথে কতটা মানিয়ে নিতে পারবে সেক্ষেত্রেও একটা বড় সংশয় থেকে যাচ্ছে। তবে ওকে সাপোর্টের জন্য বার্সায় এক Messi আর Dembele  ছাড়া আর কাউকে দেখি না কিন্তু ডেম্বেলে এর পাসিং সেন্স খুবই জঘন্য। সেজন্য Kane কেই আমি এগিয়ে রাখবো।

এবার আসা যাক বার্সার কাউন্টার এটাক স্ট্রাটেজি নিয়ে। Koman এর প্রথম অর দ্বিতীয় ম্যাচে একদম পারফেক্ট একটা কাউন্টার এটাকের ফ্লেভার পেয়েছিলাম কিন্তু পরবর্তীতে সেই আগের ঘুম ধরা স্ট্রাটেজি। ডেম্বেলে বল নিয়ে কাউন্টারে উপরে উঠলে দেখা যায় সেই শেষ পর্যন্ত প্রতিপক্ষের ডি-বক্সের সামনে গিয়ে আবার সেই ব্যাক পাস কারন উপরে আর কেউ উঠছে না। মেসির এক্ষেত্রে কিছু করার থাকেন কারণ মেসির অনেক নিচে নেমে খেলতে হয় উপরে বল সাপ্লাই দেয়ার জন্য  ও উপরে উঠলে বল আর উপরে আসেনা। প্রায় সব ম্যাচেই বলব না দেখা যায় বার্সার প্রত্যেক ম্যাচেই এটাক বিল্ডাপে মূল কারিগর থাকে মেসি। তবে ডি ইয়ং ছেলেটার পারফরমেন্স এক কথায় অনবদ্য। আয়াস্ক থেকে আমরা একটা পিওর জেম পেয়েছি। এক কথায় বার্সার মুশকিল আহসান এই সীজনে ডি ইয়ং। একজন সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার হয়েও দলের প্রয়োজনে কখনো সেন্টার ব্যাক থেকে সিডিএম আবার কখনও ফলস্ নাইন পজিশন আবার কখনও সাডেন রান নিয়ে একাই ডি বক্সের মধ্যে ঢুকে প্রতিপক্ষের মধ্যে ত্রাস সৃষ্টি করছেন খুব সাফল্যের সাথে।

এখন আসি একজন ব্যাকআপ স্ট্রাইকারের পয়েন্টে। একজন মিডিয়াম লেভেলের ব্যাকআপ স্ট্রাইকার যে কতোটা প্রভাব ফেলে মেইন স্ট্রাইকার এর অনুপস্থিতিতে সেটা বার্সা  vs পুল এর ম্যাচ দেখলেই বোঝা যায়। এজন্যই পুল, বায়ার্ন কিংবা সিটির ওদের মেইন স্ট্রাইকার ইঞ্জুর্ড হলেও তেমন মেজর কোন প্রবলেমে এদের পরতে হয় না কারণ ওই যে ভালো মানের ব্যাকআপ স্ট্রাইকার সেই গ্যাপ পূরণ করে দেয়। 

তাই বার্সা বোর্ডের নাম্বার নাইনের পাশাপাশি একজন ভালো মিড-রেঞ্জের ব্যাকআপ স্ট্রাইকার এর দিকেও নজর দেয়া উচিত বলে মনে করি। সেক্ষেত্রে আগুয়েরকে ফ্রিতে বার্সায় সাইন করানো গেলে সেটা হবে খুব ভালো অপশন।

এবার আসবো বার্সার আরেকটা খুবই বিরক্তিকর বিষয় ডি-বক্সের সামনে গিয়ে বল নিয়ে ডায়নামিক এংগেলে বল পাস করে যাওয়া। মনে হয় যেনো সবাই অন টার্গেটে শুট করতে ভয় পাচ্ছে কিংবা মেসিকে খুঁজতেছে। এই প্রবণতা থেকে বের হয়ে অন টার্গেট শুটিং এর হার বাড়াতে হবে। যেহেতু বার্সার মাঝ মাঠের দুই মহারথী Xavi, Iniesta নেই যারা ডিফেন্স ছেড়ে পাস দিবে আর সাডেন রান নিয়ে যে কেউ সেটা গোলে কনভার্ট করবে তাই ডি-বক্সের সামনে গিয়ে এতো পাস না খেলে বার্সার মিড-ফিল্ডার এবং এটাকারের উচিত মাঝে মধ্যে লং শট নেয়া আর এতে গোল হওয়ার পারসেন্টেজ বেড়ে যায়। 

সবচেয়ে দুঃখের বিষয় আগের বছর গুলোতে অনেক অপ্রয়োজনীয় খেলোয়াড় কিনেছিল বার্সা যার সিংহ ভাগই ছিল ফ্লপ এন্ড নট ফিট ফর বার্সা যেটা পরবর্তীতে বার্সার ফিনানশিয়াল ক্রাইসিস তৈরি করেছে অথচ কাজের কাজ কিছুই হয়নি। এই কুকর্মের মূল হোতা বার্সার এক্স প্রেসিডেন্ট Bartomue. এই লিস্টে অনেক নাম যুক্ত হবে Deulofeu, Andre Gomez, Arda Turan, Malcom, Yerry Mina, Prince Boateng সবশেষে  Pijanic। এদের মধ্যে অধিকাংশ বার্সার স্টাইলের সাথে নিজেকে খাপ খাইয়ে নিতে পারেনি আবার অনেকে কোচের প্ল্যানিং এর আওতায় না থাকায় নিজেকে প্রমাণ করার মতো সুযোগও পায়নি। তাই এরপর থেকে একটি  খেলোয়াড়ের পেছনে ইনভেস্ট করার ক্ষেত্রে বার্সা বোর্ডের অনেক ফ্যাক্টর মাথায় রেখে সামনে আগানো উচিত বলে আমি মনে করি।

বার্সা এই ফিলোসোফিতে বিশ্বাসী যে, বার্সা স্টার কেনে না, স্টার তৈরি করে। বার্সার La Masia ফুটবলার তৈরির আতুর ঘর বলা হয় যে একাডেমিকে, যেখান থেকে Messi, Xavi, Iniesta, Puyol, Busquets, Pique দের মতো লিজেন্ডরা বের হয়ে এসেছে, বার্সা পেয়েছে ভুরি ভুরি সাফল্য, গড়েছে একের পর এক বিশ্ব রেকর্ড। বার্সার ট্রফি কেবিনেটকে করেছেন সমৃদ্ধ। 

Sir Johan Cruyff এর একটি বিখ্যাত উক্তি,  

" SOCCER IS SIMPLE BUT IT'S DIFFICULT TO PLAY SIMPLE "

বার্সার ২০০৯-১০ এর লা মাসিয়ান সেই গোল্ডেন ইয়াং জেনারেশনটা কার্যত মাঠেই সেটি করে দেখিয়েছিলেন।

হ্যাঁ একটা পজিটিভ দিক, Koman এর আন্ডারে ইয়াং La Masian প্রোপার প্লেয়িং টাইম পাচ্ছে, সেই সাথে Koman এর সাবস্টিটিউট সেন্সটা আরেকটু ইম্প্রুভ করলে আর উপরের ক্রাইটেরিয়া গুলো ফুল ফিল হলে আমি দায়িত্ব নিয়ে লিখে দিতে পারি বার্সা আগামী দুই বছরের মধ্যে আবার গোটা ফুটবল বিশ্ব শাসন করতে যাচ্ছে। এই বার্সাই আবার ট্রেবল জয় করে কাতালানদের সাথে বার্সেলোনার রাস্তায় ট্রফি জয়ের উল্লাসে ফেটে পরবে কারণ একমাত্র বার্সার কাছেই আছে  ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়ানক লিওনেল মেসি নামের  ব্রহ্মাস্ত্রটি যা অন্য কারো কাছে নেই।

জানি হয়তো একটু বেশি আবেগী হয়ে অনেকটা উচ্চাকাঙ্ক্ষী হয়ে পরছি। এও জানি বার্সার বর্তমান ফিনানশিয়াল ক্রাইসিসে সব প্রবলেম গুলো এক সাথে সমাধান করা সম্ভব নয়। হয়তো কয়েক বছর সময় লেগে যাবে। কিন্তু হতাশ হচ্ছি না। আবার ফিরবে বার্সা। খুব কঠোর হয়ে ফিরবে।

#Visca_el_Barca ❤️

#mes_que_un_club (more than a club) ????????

সুব্রত চক্রবর্তী শুভ্র 
নটরডেম বিশ্ববিদ্যালয়   
আইন বিভাগ

মন্তব্য লিখুন :